1. mohib.bsl@gmail.com : admin : Md Mohibbullah
  2. editor@barisalerkhobor.com : editor :
রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৪:০৪ অপরাহ্ন

বাকেরগঞ্জে চারটি দোকান ভাংচুর, লুটপাটের অভিযোগ।

  • Update Time : শনিবার, ৪ মে, ২০২৪
  • ১১ Time View

 

বাকেরগঞ্জ বরিশাল সংবাদদাতা :
বরিশালের বাকেরগঞ্জে চারটি দোকানঘর কুপিয়ে, পিটিয়ে ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের ভাতশালা গ্রামের চৌরাস্তা বাজার এলাকায়। এ ঘটনায় দোকান ও জমির মালিক মো: ফারুক হোসেন মোল্লা বাদী হয়ে গত ২ মে বরিশাল বিজ্ঞ দ্রুত বিচার আদালতে ১৬ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং ০৪/২০২৪। মামলা সূত্রে জানা যায়,উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের ভাতশালা মৌজার জেএল নং ১৩৩,এস এ খতিয়ান নং ১১৮৭ (চৌরাস্তা বাজার) এর ষোল শতাংশ জমির ক্রয়সূত্রে মালিক পার্শবর্তী এলাকার ফারুক হোসেন মোল্লা ও তার ভাই আবদুল লতিফ মোল্লা। এই জমিতে তারা দীর্ঘবছর যাবত ৪টি দোকানঘর নির্মাণ করে ভাড়া দিয়ে আসছে। একই এলাকার খবির সন্যামত গংরা দীর্ঘদিন যাবত এই জমি দখলের পায়তারা করতেছে। ২০১৭ সালে ২৩ আগষ্ট ওই জমিতে খবির গংরা জোরপূর্বক ঘর নির্মানের চেষ্টা চালালে ফারুক মোল্লা বরিশাল বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় বিজ্ঞ আদালত ২০২০সালে ফারুক মোল্লার পক্ষে রায় প্রদান করেন।
গত ১লা মে সকাল ১০ সময় ফারুক মোল্লা গংরা লোকমুখে শুনতে পারে একই এলাকার মৃত মুনসুর আলী সন্যামতের ছেলে খবির সন্যামত,শফিকুল সন্যামত,আবুল সন্যামত,বাবুল সন্যামত,খলিল সন্যামত সহ ২০-২৫ জন ধারালো দেশীয় অস্ত্র রামদা,ছেনা, বগি দা,শাবল, কুড়াল,হাতুরি,লোহার রড সহ তাদের চৌমাথা বাজারস্থ দোকানপাট কুপিয়ে পিটিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট করতেছে। এসময় ফারুক মোল্লা ও দোকানের ভাড়াটিয়ারা ভাংচুর লুটপাটে বাধা দিলে খবির সন্যামত গংরা তাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে মারধর শুরু করে। এতে ফারুক মোল্লাসহ কয়েকজন আহত হয়। এসময় জাকির মৃধার মুদি দোকানের মালামাল ও অন্যান্য দোকানের মালামাল চারটি ইঞ্জিন চালিত ভ্যানে করে লুটপাট করে নিয়ে যেতে থাকে। সকাল ১১ টা পর্যন্ত চলে এই ভাংচুর ও লুটপাট। ঘটনাস্থলে পুলিশ এলে আসামীরা সটকে পরে।
সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে দেখা যায় এব্যাপারে উভয় পক্ষের মধ্যে ব্যপক উত্তেজনা বিরাজ করছে, যেকোন সময় আবারও অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলে এলাকাবাসী সুত্রে জানা গেছে।
এব্যাপারে ফরিদপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সফির কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, ১লা মে সকালে চৌরাস্তা বাজারে দোকানপাট ভাংচুরের খবর শুনে ওখানে পুলিশ পাঠাই, পুলিশ গিয়ে ওখানের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
বাকেরগঞ্জ থানার এ এস আই আল আমিন বলেন, চৌকিদারের মাধ্যমে শুনতে পাই চৌরাস্থা এলাকায় দোকানপাট দখল নিয়ে ঝামেলা হইতেছে। আমি সংগীয় ফোর্স সহ ওখানে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি।
এব্যাপারে অভিযুক্ত খবির সন্যামতের কাছে কাছে জানতে চাইলে তিনি নিজেকে ওই জমির মালিক দাবি করে দোকান ঘর ভাংচুরের কথা স্বীকার করেন।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved ©
Theme Customized By BreakingNews
Optimized by Optimole