1. mohib.bsl@gmail.com : admin : Md Mohibbullah
  2. editor@barisalerkhobor.com : editor :
শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন

স্মার্টফোনে ফ্রড অ্যাপস চিনিয়ে দেবে গুগল, সতর্ক করবে বিপদ আসার আগে

  • Update Time : মঙ্গলবার, ৪ জুন, ২০২৪
  • ৬ Time View

উন্নত ম্যালওয়্যার শনাক্তকরণ, জালিয়াতি প্রতিরোধ, এবং অ্যাপ নিরাপত্তা টুল উন্নত করার লক্ষ্যে বিশেষ ব্যবস্থা নিচ্ছে গুগল। গ্রাহক সুরক্ষার্থে নিজের সিকিউরিটি ফিচারগুলোকে আরও শক্তিশালী করে তুলছে গুগল। এবার অ্যাপ স্ক্যান করেই গুগল বলে দেবে সেটা ফ্রড কিনা। আর সেই জন্যই গুগল তার গুগল প্লে-প্রোটেক্ট লাইভ থ্রেট ডিটেকশন ফিচারের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ক্ষমতা প্রসারিত করছে। এই ফিচারটি আপডেট হলে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে ইনস্টল করা অ্যাপগুলোকে ম্যালওয়ারের জন্য স্ক্যান করতে পারবে। বার্ষিক ডেভেলপার কনফারেন্সে এমনটাই ঘোষণা করেছে কোম্পানি।

এই ফিচারটি এতটাই কার্যকরী হবে যে কখনও কোনো অ্যাপ যদি প্রতারণা এবং অপব্যবহারের অভিপ্রায়গুলো লুকিয়েও রাখে, তাহলেও গুগল তার অন-ডিভাইস এআই ক্ষমতার মাধ্যমে লাইভ হুমকি শনাক্ত করে ফেলবে।

গুগলের মতে, গুগল প্লে-প্রোটেক্ট প্রতিদিন ২০০ বিলিয়ন অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ স্ক্যান করবে, যা তিন বিলিয়নেরও বেশি ব্যবহারকারীকে ম্যালওয়্যার থেকে সুরক্ষিত রাখতে সাহায্য করবে।

কীভাবে এআই-চালিত গুগল প্লে-প্রোটেক্ট ফ্রড অ্যাপস শনাক্ত করবে: গুগল ব্যাখ্যা করেছে যে গুগল প্লে-প্রোটেক্টের অন-ডিভাইস এআই ফিচার ব্যবহার করে এবং অন্যান্য অ্যাপ এবং পরিষেবার সঙ্গে ইন্টারঅ্যাকশন সম্পর্কিত অতিরিক্ত আচরণগত সংকেত খুঁজে ফেলবে। সিস্টেম সন্দেহজনক কিছু খুঁজে পেলে, বৈশিষ্ট্যটি অতিরিক্ত পর্যালোচনার জন্য অ্যাপটিকে গুগল এ পাঠাবে এবং ব্যবহারকারীদের সতর্ক করবে বা অ্যাপটির খারাপ কীর্তিকলাপ সম্পর্কে নিশ্চিত হলে অ্যাপটিকে ডিসেবল করে দেবে।

কোম্পানি বলেছে, এটা আমাদের ডেটা সংগ্রহ না করেই ব্যবহারকারীদের রক্ষা করতে দেয়।

জালিয়াতি থেকে অ্যাপগুলোকে রক্ষা করার জন্য বিশেষ টুল: কোম্পানি স্ক্যাম এবং জালিয়াতি থেকে অ্যাপগুলোকে রক্ষা করার জন্য ডেভেলপারদের আরও টুল সরবরাহ করছে। যার দরুণ, ডেভেলপাররা এখন পরীক্ষা করতে পারবেন যে অন্য কোনো অ্যাপ চলছে কিনা যা স্ক্রিন ক্যাপচার করতে, ওভারলে তৈরি করতে বা ডিভাইস নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।

গুগলের দাবি, প্লে-ইন্টিগ্রিটি এপিআইও এই টুলগুলোর একটি। যেটা ব্যবহার করে ডেভেলপাররা বুঝতে পারবেন যে অ্যাপগুলো মডিফাই করা হয়েছে কিনা, বা এটি একটি আসল অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে চলছে কিনা, যাতে তারা প্রতারণামূলক বা ঝুঁকিপূর্ণ বিষয়বস্তু আগেভাগেই শনাক্ত করতে পারে এবং আক্রমণ, অপব্যবহার প্রতিরোধে পদক্ষেপ নিতে পারে।

এরই সঙ্গে ডেভেলপাররা আর্থিক এবং ব্যাঙ্কিং অ্যাপগুলো ব্যবহার করার সময় যাতে যে কোনো বিপদ এড়াতে সহায়তা হতে পারে, তা নিশ্চিত করার জন্য গুগল প্লে-প্রোটেক্ট এনাবেল আছে কিনা তাও দেখে নেবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
© All rights reserved ©
Theme Customized By BreakingNews
Optimized by Optimole