1. mohib.bsl@gmail.com : admin :
  2. h.m.shahadat2010@gmail.com : Barisalerkhobor : Barisalerkhobor
বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম ::
আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও কবি জীবনানন্দ দাশের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মেলার প্রস্তুতিমূলক সভা ঝালকাঠি নলছিটিতে ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের ৩ সদস্য কমিটি গঠন ২৮ পর্যটক নিয়ে বরিশালে ভারতের প্রমোদতরী গঙ্গাবিলাস সবাইকে নির্ধারিত মূল্যে এলপি গ্যাস বিক্রি করতে হবে শুক্রবার থেকে মনোনয়ন ফরম বিক্রি করবে আওয়ামী লীগ ঝালকাঠি এন এস কামিল মাদরাসা প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও ২৫৬ জন এ+ পেয়ে মাদরাসা বোর্ডে শীর্ষে অবস্থান এবার নিজের নামে ফাউন্ডেশন খুলবো: হিরো আলম অভিনেত্রী শারমিন আঁখির অবস্থা শঙ্কামুক্ত : চিকিৎসক অভিনয় নয়, ‘সময় কাটানো’র প্রস্তাব অভিনেত্রীকে যে দৃশ্যে বুক কাঁপে

মাদ্রাসাগুলোতে জঙ্গিবাদের চর্চা ও চাষ হচ্ছে : শাহরিয়ার কবির

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী, ২০২৩
  • ৪১ Time View

শেখ মুহাম্মাদ আবু জাফর

‘উগ্র মৌলবাদ, সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক তামসিকতার বিরুদ্ধে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাদীপ্ত ধর্মনিরপেক্ষ মানবিক সংস্কৃতির বিকাশ ঘটুক’—এই স্লোগানে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি (ঘাদনিক)এর ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত হচ্ছে আজ বৃহস্পতিবার ১৯ জানুয়ারি ২০২৩ খ্রি.। বেলা ১১টায় বাংলা অ্যাকাডেমিতে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন নরওয়ের লোক সংগীত গবেষক, লেখক ও আলোকচিত্র শিল্পী ওয়েরা সেথের।দিনব্যাপী আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন (ঘাদানিক) সভাপতি শাহরিয়ার কবির। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জনাব আসাদুজ্জামান খান কামাল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী জনাব কে এম খালিদ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য দান কালে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেন, আমাদের দেশের মাদ্রাসাগুলোতে এবং অন্যান্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিভিন্নভাবে জঙ্গিবাদের চর্চা ও চাষ হচ্ছে। যা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর একার পক্ষে দমন করা সম্ভব নয়। নাগরিক সমাজ, সামাজিক প্রতিরোধ, সাধারণ মানুষ ও বিভিন্ন সংগঠনকে সম্পৃক্ত হয়ে এগুলো মোকাবিলা করতে হবে।
শাহরিয়ার কবির আরও বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভিন্ন ধর্ম, ভিন্নমত ও ভিন্ন ধারার জীবনযাপনে বিশ্বাসী মানুষের প্রতি ঘৃণা-বিদ্বেষ এবং আমাদের সংবিধানের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানো হচ্ছে। এগুলো মোকাবিলা করাও সরকারের একার পক্ষে সম্ভব নয়। এসব মোকাবিলায় ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সবসময় সরকারের পাশে থাকবে।
হারিয়ে যাওয়া লোক সংগীতের মর্যাদা ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের প্রতি অনুরোধ থাকবে, যেন পর্যাপ্ত বাজেট আসে। অনেক সময় বাজেট আসলেও খরচ না হয়ে ফিরে যায়। এসব ক্ষেত্রে নজর দিয়ে বাজেটের যথাযথ ব্যবহার করতে আহ্বান জানান তিনি।
তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধের গান, লালনের গান, রবীন্দ্র কিংবা নজরুলের গানই আমাদের হাতিয়ার। এই হাতিয়ার ব্যবহার করে আমরা বাংলাদেশ থেকে সাম্প্রদায়িকতাকে চিরতরে নির্মূল করতে চাই।
ঘাদানিক সভাপতি আরও বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের জন্য শেখ হাসিনা একটি বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করেছেন। তিনি আমাদের অনেক প্রোগ্রামে অংশ নিয়েছেন। আমাদের দীর্ঘদিনের দাবী ছিল একাত্তরের ঘাতক, দালাল, রাজাকার ও আল-বদরদের বিচার করতে হবে। জাহানারা ইমামের উপস্থিতিতে বাইতুল মোকাররমের সামনের সমাবেশে শেখ হাসিনা আমাদের বলেছিলেন, এই বাংলাদেশের মাটিতেই যুদ্ধাপরাধীদের বিচার হবে। তিনি সেই কথা রেখেছেন।
তিনি বলেন, আমাদের ন্যূনতম দাবি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ গড়া, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ গড়া। ১৯৭২ এর সংবিধানকে আমরা বলি বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক দর্শনের প্রতিচ্ছবি। কিন্তু জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর সেটি ভেস্তে যায়।
শাহরিয়ার কবির বলেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে যে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে তা শুধু আঞ্চলিকভাবে নয়, আন্তর্জাতিকভাবেই প্রশংসিত হয়েছে। বিশেষ করে দেশে আত্মপ্রকাশ করা জঙ্গিদের দমন করা সম্ভব হয়েছে। জঙ্গিদের রাজনৈতিক দর্শন বা আদর্শ মোকাবিলায় আমরা আমাদের হাতিয়ার নির্মাণ করতে পারিনি। সেই হাতিয়ার হতে পারে আমাদের সংস্কৃতি।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস, সংগীতশিল্পী ফরিদা পারভিন, রামেন্দু মজুমদার, মুক্তিযোদ্ধা নাসির উদ্দীন ইউসুফ, সাহিত্যিক মুনতাসীর মামুন প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2023
Theme Customized By BreakingNews
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com