1. mohib.bsl@gmail.com : admin :
  2. h.m.shahadat2010@gmail.com : editor : Barisalerkhobor
বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৯:০২ পূর্বাহ্ন

বরিশালে ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কমিটিতে ঠাঁই পেলেন ছাত্রদল কর্মীরা!

  • Update Time : সোমবার, ৩১ অক্টোবর, ২০২২
  • ২৪ Time View

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ যখন বিএনপি কিংবা জামাতের সাথে সম্পৃক্ত কাউকে ছাত্রলীগের কমিটিতে স্থান না দিতে নির্দেশ দিয়েছেন ঠিক তখনই মহানগরের নব-গঠিত এক ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কমিটিতে বিএনপির সাথে সম্পৃক্তদের সদস্যপদ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

 

সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ অক্টোবার মহানগর ছাত্রলীগের আহবায়ক রইজ আহমেদ মান্না, যুগ্ম আহবায়ক মাইনুল ইসলাম ও আরিফুর রহমান শাকিল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করা হয়। জামাল সিকদার হিরনকে আহবায়ক করে গঠন হওয়া ৪২ সদস্যের ওই কমিটিতে প্রায় ৫জন সদস্যের বিরুদ্ধে বিএনপির ও অন্য রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নব-গঠিত ওই কমিটির ২নং সদস্য ইয়াসির আরাফাত ছাত্রদলের একজন কর্মী হিসেবে পরিচিত। মহানগর ছাত্রদলের সাবেক নেতা তসলিম উদ্দিন সহ একাধিক ছাত্রদল নেতার সাথে তার ছবি ইতিমধ্যে গণমাধ্যমকর্মীদে হাতে এসেছে।

১২নং সদস্য রিয়াদ আকন আব্দুল্লাহ ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলনের একজন সক্রিয় সদস্য। ওই দলের বিভিন্ন কর্মসূচিতেও তাকে উপস্থিত থাকতে দেখা গেছে।

১৩নং সদস্য ইমরান হোসেনও ছাত্রদলের রাজনীতির সাথে যুক্ত। গত সিটি নির্বাচনে মজিবর রহমান সরোয়ার বিএনপির মেয়র প্রার্থী হিসেবে মনোনায়ন পাওয়ায় ওই ওয়ার্ডে মিষ্টি বিতরন করে আনন্দ মিছিল করেছিলেন ইমরান হোসেন। এমনই একটি ছবিও গণমাধ্যমকর্মীদের হাতে এসেছে। অবশ্য সেই নির্বাচনে বিপুল ভোট মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ। এমন একজন ব্যক্তি কিভাবে ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সদস্যপদ লাভ করেছেন এনিয়ে এলাকাজুড়ে এখন তোলপাড় চলছে।

ইয়াসির আরাফাত, রিয়াদ আকন আব্দুল্লাহ ও ইমরান হোসেন ছাড়াও আরও দুই সদস্যের বিরুদ্ধে অন্য রাজনৈতিক দলের সাথে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ করেছেন ওই ওয়ার্ডের তৃণমূলের ছাত্রলীগের কর্মীরা।

নাম প্রকাশের অনিচ্ছুন ৩নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের একাধিক নেতাকর্মীরা জানান, যাদের বিগত সময় ওয়ার্ডের বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রোগ্রামে অংশ নিতে দেখতাম এখন তারা ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সদস্য। এই বিয়ষটি মহানগর ছাত্রলীগের খতিয়ে দেখা উচিত।

এদিকে কতজন সদস্য নিয়ে ওয়ার্ডের কমিটি গঠন করা হয়েছে তা জানেন না বলে জানিয়েছেন নব-গঠিত কমিটির আহবায়ক জামাল সিকদার হিরন। তিনি বলেন, আমি এখনও সবাইকে চিনি না, কমিটি দিয়েছে মহানগর ছাত্রলীগ, আপনারা আহবায়কের সাথে কথা বললেই সব জানতে পারবেন।

এবিষয়ে মহানগর ছাত্রলীগের যুগ্ম আবহবায়ক মাইনুল ইসলাম মুঠফোনে জানান, বিএনপি-জামাত কিংবা অন্য দলের সদস্যদের নিয়ে কমিটি গঠনের কোন সুযোগ নেই। যদি এমন কেউ সদস্যপদ পেয়ে থাকে তাহলে মহানগর ছাত্রলীগের আহবায়ক, যুগ্ম আবহবায়ক, সদস্যসহ সকলে মিলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এব্যাপারে মহানগর ছাত্রলীগের আহবায়ক রইজ আহমেদ মান্নাকে মুঠফোনে রিং দেওয়া হলে তিনি রিসিভ না করায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com