1. mohib.bsl@gmail.com : admin :
  2. h.m.shahadat2010@gmail.com : editor : Barisalerkhobor
মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ০৭:০০ পূর্বাহ্ন

তিন সাংবাদিক হত্যাকান্ড ও কিছু কথা

  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৪ আগস্ট, ২০২২
  • ৪৬ Time View

 

মোঃ শহিদুল ইসলাম
সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টারঃ

কোথাও কোন সাংবাদিক নির্যাতন, হত্যা কিংবা মামলার শিকার হলে তার দোষের আর শেষ থাকেনা! তেমনি সোনারগাঁওয়ের তরুন সাংবাদিক রাব্বানীর বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে অপ-প্রচার শুরু হয়ে গেছে। কেউ বলেন রব্বানী মাদক সেবন করতো; কেউবা বলছেন মাদক ব্যবসা। আমরা জানি রাব্বানী প্রতিবাদী ছিলো,সাহসী ছিলো-যেটা ওর ফেসবুকের টাইমলাইনে গিয়ে দেখলেই একজন আধা পাগল মানুষেও বুঝার বাকি থাকবেনা।

যতদূর জেনেছি, একটি চক্র গোলাম রাব্বানী রাব্বানী কে অপরাধ জগতের সাথে যুক্ত হতে দীর্ঘদিন ধরে নানা প্রলোভন দেখিয়ে ফুঁসলিয়ে আসছিলো। কিন্তু রাব্বানী মুক্তিযোদ্ধার সন্তান হিসেবে চক্রের ফাঁদে না দিয়ে নিজের ফেসবুকে একটি লাইভ প্রচার করে। এতেই অপরাধীচক্রের মুখোশ খুলে যাবার সন্দেহে রাব্বানীকে ডেকে নিয়ে হত্যা করে। ঘটনা এখানেই শেষ নহে-তথ্য সংগ্রহ চলছে। ঐ তথ্য থাকছে কিলিং মিশনে কারা ছিলো,কোথায় নিয়ে হত্যা করে, রাতে কোথায় বসে সবশেষ পরিকল্পনা করে কার মাধ্যমে ডেকে এনেছিলো,ইত্যাদি ইত্যাদি….

আপনারা জানেনতো! সম্প্রতি কুষ্টিয়ার সাহসী সাংবাদিক হাসিবুর রহমান রুবেল তথ্য অধিকার আইনে তথ্য চাওয়ায় তাকেও কৌশলে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকান্ডের পর খোদ মিডিয়াকর্মী সাংবাদিক বন্ধুদের একটি অংশ ম্যানেজ করে রুবেলকে ঠিকাদার বানাতে চেষ্টা করেছেন। আমরা আসল ঘটনা জেনে গেছি,কী কারণে রুবেল হত্যার শিকার হলো। কে সেই ঠিকাদার? যিনি দেশে আসতে না পেরে বিদেশে বসে কলকাঠি নাড়ছেন? রুবেল হত্যা মিশনে কে বা কারা জড়িত সেটিই এখন মূল কাজ। মামলাটি নৌপুলিশ তদন্ত করছে বলে জানা গেছে। আসলে একটি নতজানু একটি বিভাগ দিয়ে মামলাটি তদন্ত করাচ্ছে এর পেছনেইবা কী কারণ থাকতে পারে এগুলো সাংবাদিকদের বলা উচিৎ। কুষ্টিয়ার সবচে বড় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কোনটি? যে প্রতিষ্ঠানটিকে গত কয়েকবছরে কয়েকশ কোটি টাকার কাজ পাইয়ে দেয়া হয়েছে খোদ সরকারী দপ্তরের কর্মকর্তাদের বদৌলতে। এগুলোই এখন অনুসন্ধানের ইস্যু।

তবে ইতিমধ্যে স্থানীয় বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের পাশাপাশি বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কুষ্টিয়া জেলা শাখা রুবেল হত্যার সাথে জড়িত মূল পরিকল্পনাকারীকে পাকড়াওয়ের দাবিতে ৩দিন ব্যাপী মানববন্ধন, স্মারকলিপি, বিক্ষোভ মিছিল ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করে আন্দোলনের জানান দিয়েছেন। এ আন্দোলনের সাথে অবশ্য হত্যা ম্যানেজ মিশনে অংশ নেয়া সাংবাদিকরা অংশ না নিলেও কুষ্টিয়ার বড় একটি অংশ উপস্থিত হয়ে তাদের মুখে চুনকালি লেপন করে দিতে সক্ষম হয়েছেন। এদিকে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরামের কেন্দ্রের পক্ষ থেকে হত্যার ক্লু উদঘাটতে মামলাটি তদন্তের ভার সিআইডি অথবা পিবিআইকে দেয়ার দাবি করা হয়েছে। কেননা; সাংবাদিক হত্যাকান্ড গুলোর বেশির ভাগই বিচার প্রক্রিয়া মাঝপথে থমকে যায়। আর সেখানে তদন্ত যদি দুবর্বল হয় দবে বিচার পাওয়াটা দূস্কর হতে পারে।
অপরদিকে কুমিল্লায় সাংবাদিক মহিউদ্দিন হত্যাকান্ডে জড়িত অপর আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। পুলিশ পরিবারের সন্তান সাংবাদিক নাঈম কিলিং মিশনে সরাসরি জাড়িতদের হুমকির মুখে নিহতের পরিবার ও সাংবাদিকরা।
কুমিল্লায় তালিকাভুক্ত শীর্ষ মাদক কারবারি ও সন্ত্রাসীদের এলোপাতাড়ি গুলিতে নিহত সাংবাদিকের মায়ের কান্না থামেনি এখনো,থামবেওনা। তবে আমরা জেগে আছি। আপনিও সোচ্চার থাকুন। সাংবাদিক সুরক্ষা আইন প্রণয়নসহ ১৪ দফা বাস্তবায়নে আপনিও দাবি তুলুন….

আহমেদ আবু জাফর,প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান,বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম- বিএমএসএফ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ ক্যাটাগরির আরো নিউজ
© All rights reserved © 2019 Breaking News
Theme Customized By BreakingNews
WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com